নিয়মিত কমিটি গঠন করে প্রশংসিত জয়-লেখক

  • বাংলা মিরর ডেস্ক
  • ২৫,জুন,২০২২ ০১:১৬ PM

২০১৯ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে সংগঠনের ১নং সহ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়কে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। এর প্রায় ৪ মাস পর ২০২০ সালের ৪ জানুয়ারি  সংগঠনটির ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের ভারমুক্ত করে পূর্ণাঙ্গ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ঘোষণা করেন।

সেই হিসেবে বর্তমান কমিটির মেয়াদ দুইবছর ৪ মাস হলেও ২০২০ সালের মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ১৮ মাস বন্ধ থাকায় থমকে যায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীক ছাত্রলীগের যাবতীয় কর্মকাণ্ড। এর মাঝেও খোলা থাকা বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি প্রদানের মাধ্যমে প্রশংসিত হন জয় লেখক।

গত অক্টোবরে পুরোপুরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরে দ্রুতই  বিভিন্ন ইউনিটের কমিটির কার্যক্রম শুরু করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হল কমিটি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হল কমিটি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সহ বিভিন্ন জেলা এবং মহানগর কমিটি দেয়ার মাধ্যমে পুরোদমে ছাত্রলীগের কর্মীদের মনে আশার সঞ্চার করেন জয় লেখক। অমিক্রন ধাক্কায় কিছুটা পিছিয়ে গেলেও ঈদুল ফিতরের আগেই সম্মেলন হয় ঢাকার বদরুন্নেসা এবং গভর্নমেন্ট কলেজ অব অ্যাপ্লাইড হিউম্যান সায়েন্স ও বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় শাখার।

ঈদুল ফিতরের পরপরই ১৩ই মে ঘোষণা হয় ঢাকার ইডেন মহিলা কলেজ, বদরুন্নেসা এবং গভর্নমেন্ট কলেজ অব অ্যাপ্লাইড হিউম্যান সায়েন্স এর আংশিক কমিটি। এর ফলে ঢাকার কলেজগুলোর নেতাকর্মীদের মধ্যে উচ্ছাস ছড়িয়ে পড়ে। তারা ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদককে। তাদের আশা জয়-লেখকের হাত ধরেই করোনা পরবর্তী বিশেষ করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীক ছাত্রলীগের নবজোয়ার সৃষ্টি হচ্ছে এবং দ্রুত কমিটি প্রদানের মাধ্যমে এই ধারা বজায় থাকবে।

সম্পর্কিত খবর

কোনো সম্পর্কিত খবর পাওয়া যায়নি