সিনেমার সিন্ডিকেট ভাঙবে কবে?

  • বায়েজিদ খান
  • ২৬,সেপ্টেম্বর,২০২২ ০৪:২৬ PM

দেখি দেখি করেও অনেকদিন মুভি দেখা হয় না সিনেপ্লেক্সে। এবার দিন দ্যা ডে আর পরান দেখার ইচ্ছা আছে। শেষ ছবি দেখছিলাম জোকার ,তারপর আর দেখা হয় নি। দেশে ভালো সিনেমা হয় না, এটা সবাই বলে।  এর পিছনে দায়ী করা হয় ,বাজেট এর অভাব।  আমার এসব বিশ্বাস হয় না। ইরানি সিনেমার বাজেট খুব বেশী না,তারপরও তারা হরহামেশাই সেরা সেরা সিনেমা বানাচ্ছে।  বাজেট  অবশ্যই একটা সমস্যা কিন্তু ট্যালেন্ট কই? সিনেমার নায়ক ,নায়িকাদের নাম বলতে বললে ,হাতে গোনা দু চারজনের নাম চলে আসেবে , কিন্তু তাদের অভিনয় কি অসাধারন? কোনভাবেই তা নয়! তাদের কোন মুভি আন্তর্জাতিক বা দেশীয় অঙ্গনে প্রশংসিত হয়েছে। এমন কোন মুভির নাম বলতে সেই ৭০ কিংবা ৮০ দশকে যেতে হবে। এতটা পথ হাটলে আপনি 
আপনি এই প্রজন্মের কাউকে খুজে পাবেন না। তাই সিনেমা হল বন্ধ গেছে , বন্ধ হয়ে গেছে  সিনেমার সাথে কাজ করা হাজারো মানুষের রুটি রুজির পথ।

আমাদের কোন ভালো পরিচালক নাই যার নাম মানুষের মুখে থাকে। পাশের দেশের দিকে তাকান সেখানে অজস্র নাম ঝলমল করে। বাংলা সিনেমার শুনলে মানুষ হাসে। মানুষই যদি হাসে তো সিনেমা বাচিয়ে রাখবে কে? তাই মানুষ ঝুকছে নেটফ্লিক্স ,অ্যামাজনের দিকে। জলিল সাহেব সিনেমা বানিয়েছেন , দাবি করেছেন তিনি ১০০ কোটি টাকা বাজেট খরচ করে দিন দ্যা ডে বানিয়েছেন। বাজেট নিয়ে আমার বলার কিছু নাই। উনি অভিনয় ভালো পারেন বা পারেন না সেটা আলোচনা হতে পারে কিন্তু তিনি চেষ্টা করেছেন। কিন্ত উনি এই সিনেমার খারাপ সময়ে মুভি বানিয়েছন ,এটা অনেক বড় বিষয়। সিনেমার প্রতি কিছুটা ভালোবাসা না থাকলে তা সম্ভব না।

কথায় আছে একেবারে কিছু না করার চেয়ে কিছু করা ভালো। সিনেমার হয়তো শিল্পমান খারাপ বা ভালো হতে পারে। দুনিয়ায় অনেক বড় পরিচালকও অনেক ফ্লপ ছবি বানিয়েছে।উনি অনেক প্রচার করেছেন ,কারন সে অধিকার তার আছে। ৭৪ জন নায়ক ,নায়িকা কে উনি দাওয়াত দিয়েছেন সিনেমা দেখার জন্য ,এটা অনেক বড় ব্যপার। কিন্তু দেখলাম এরা অনেকেই যায়নি ,হাতে গোনা দুই একজন ছাড়া ,যাদের উনি দাওয়াত দিয়েছেন তার কেনো যায় নি। সো কলড সেলিব্রেটি বলে? 


তারা এর বড় অভিনেতা অভিনেত্রী কিন্তু তাদের বলার মত সিনেমা কি?  সিনেমার জন্য তারা কি করেছেন?  তারা কেনো গেলেন না ,বাংলা সিনেমার পাশে দাড়ালেন না, সমালোচনা করে 
জলিল সাহের ভুল তুলে ধরলেন না। সমালোচনা সিনেমা কে এগিয়ে নিয়ে যায় ,উনারা তা কেনো করলেন না? শুনেছি সিনেমার খারাপ দিনেও সিনেমার জগতে সিন্ডিকেট চলে। হয়তো জলিল সাহেব এই সিন্ডেকেটের বাইরে। তাই উনারা যাননি ,কিন্তু উনারা সব সরকারের আমলে সরকারী প্রোগ্রামে ঠিক হাজির হয়,
সেখানে সরকারী অনুদান মেলে,প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা মেলে,প্লট পাওয়া যায় , যা আসলে রাজনৈতিক কমী দের পাওনা। দেশের মানুষের কাছে এদের কোন গ্রহনযোগ্যতা নাই। শুধু মিডিয়া এদের সেলিব্রেটি হিসাবে প্রেজেন্ট করে। জলিল সাহেব হয়তো এই সস্তা সিন্ডেকেট কে সাথে না নিয়েই মুভি বানিয়েছেন। উনার সিনেমা দেখবো তারপর হয়তো সমালোচনা করবো ,কিন্তু তার চেষ্টাকে আমি ছোট করবো না।

সম্পর্কিত খবর

রাজু হত্যায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড
  • ১১,সেপ্টেম্বর,২০২২ ০৪:০৪ AM
ঢাকায় পৌছেছে পাকিস্তান দল
  • ১২,সেপ্টেম্বর,২০২২ ০৩:০০ AM
নিউজিল্যান্ডকেও উড়িয়ে দিল পাকিস্তান
  • ২৬,সেপ্টেম্বর,২০২২ ১১:৪৯ PM
পাকিস্তানের জয়রথ ছুটছেই
  • ১৪,সেপ্টেম্বর,২০২২ ০৮:৪৩ AM
আব্বু সুস্থ আছেন: আঁখি আলমগীর
  • ১১,সেপ্টেম্বর,২০২২ ০৪:১২ AM
উপপরিচালক হলেন দুদকের ৩৪ কর্মকর্তা
  • ২৬,সেপ্টেম্বর,২০২২ ১২:১৫ PM